রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তায় স্বজনপ্রীতি ও অনিয়মের অভিযোগ, স্মারকলিপি প্রদান

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই, ২০২১
  • ৩১৭ বার পঠিত

আকাশ সরকারঃ

রাজশাহীতে করোনাকালিন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আর্থিক সহায়তা থেকে রাজশাহীর প্রকৃত অসচ্ছল সাংবাদিকরা বঞ্চিত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে । এ নিয়ে ব্যাপক অসন্তুষ্টিতে ভুগছেন রাজশাহীর প্রকৃত অসচ্ছল সাংবাদিকরা। বিষয়টি উল্লেখ করে রাজশাহীর ৪ টি সাংবাদিক সংগঠণ, একটি প্রেসক্লাব ও একটি স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদক স্বাক্ষরিত স্মারকলিপি রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বরাবর পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২ঃ৩০ মিঃ এ রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের হাতে এ স্মারকলিপি তুলে দেয়া হয়। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)
শরীফুল হক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) নজরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর দেয়া আর্থিক সুবিধা বঞ্চিত প্রকৃত অসচ্ছল সাংবাদিকদের পক্ষে স্মারকলিপি প্রদান করেন দৈনিক রাজশাহীর আলো সম্পাদক আজিবার রহমান, মানবাধিকার সাংবাদিক সংগঠণ আইএইচসিআরএফ সভাপতি মিজানুর রহমান পাইলট, রাজশাহী জেলা বিএমএসএফ সভাপতি আবু কাওসার মাখন, সাধারণ সম্পাদক শামসুল ইসলাম, রাজশাহী জেলা আরজেএফ সভাপতি শাহিনুর রহমান সোনা, সাধারণ সম্পাদক আল আমিন হোসেন, বাংলাদেশ তৃণমূল সাংবাদিক কল্যান সোসাইটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম, রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম প্রমুখ।
স্মারকলিপি সূত্রে জানা যায়, রাজশাহীতে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক/প্রিন্ট/রেডিও/অনলাইন পত্রিকার কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা বিভিন্ন সময়ে সরকারী প্রণোদনা বা বিশেষ আর্থিক সহায়তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন । সেখানে জাতীয় পর্যায়ের ৪টি সংগঠন ও একটি স্থানীয় প্রেসক্লাব এবং স্থানী একটি পত্রিকা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আর্থিক সহায়তা থেকে বঞ্চিত হয়েছে মর্মে জানানো হয়।
স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধিনে বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে পাঠানো তালিকায় স্বজনপ্রীতি ও বিভাজনের বহিঃপ্রকাশ ঘটানো হয়েছে। অসুস্থ মানসিকতায় একটি অসৎ উদ্দেশ্যে হাসিলের জন্য তালিকা প্রদান করা হয়েছে। এতে করে প্রকৃত অসহায় সাংবাদিকরা এই বিশেষ প্রণোদনা বা সহায়তা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। উক্ত সংগঠন গুলো রাজশাহীতে দীর্ঘদিন থেকে দেখে আসছে সরকার বিরোধী একশ্রেণির মানুষ এই তালিকা তৈরিতে বৈষম্য সৃষ্টি করছেন। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড যেসকল মূলধারা সাংবাদিক সব সময় তুলে ধরে আসছে তারাই বারংবার বঞ্চিত হয়েছে বলেও উল্লেখ্য করা হয়।
স্মারকলিপিতে অভিযোগ আকারে বলা হয়েছে, রাজশাহীতে দু দফায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়। উক্ত সহায়তায় বারবার একই শ্রেণির একই গোষ্ঠী আত্নীয় স্বজনসহ স্বচ্ছলরা এই সহায়তায় তালিকাভুক্ত হচ্ছেন। তালিকাভুক্ত সাংবাদিকদের মধ্যে অপেশাদার সাংবাদিক ও একাধিকবার সহায়তা নেওয়া সাংবাদিকরাও আছেন। এছাড়াও সরকার বিরোধী কার্যকলাপে জড়িত কিছু ভিন্ন মতাদর্শের সাংবাদিকও আছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উক্ত সহায়তায় নানা অনিয়ম হয়েছে। এমনকি রাজশাহীতে সাংবাদিক বৈষম্য ও বিভেদ সৃষ্টির নানা কূটকৌশল অবলম্বন করা হচ্ছে মর্মে জানানো হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর