বঙ্গবন্ধুকে কটুক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আব্বাস আলীকে গ্রেপ্তারের দাবি রাসিক কাউন্সিলর বৃন্দের

রাজন ইসলাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ২২৬ বার পঠিত

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের বিরুদ্ধে কাটাখালি পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আব্বাস আলীর চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) কাউন্সিলরবৃন্দ। আজ বুধবার এক বিবৃতিতে এই তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান কাউন্সিররবৃন্দ।

 

বিবৃতিতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ বলেন, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙালি জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটুক্তি ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের বিরুদ্ধে কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। আব্বাস আলীর বক্তব্য অসাংবিধানিক, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের চেতনা ও নীতিমালার পরিপন্থী। আমরা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ কাটাখালি পৌর মেয়র আব্বাস আলীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

 

বিবৃতিতে কাউন্সিলরবৃন্দ আরো বলেন, ‘রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। তাঁর পিতা বঙ্গবন্ধুর রক্তবন্ধু জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনকে নিয়ে অকথ্য, অশালীন, অশ্রাব্য ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছে আব্বাস আলী। এতে আমরা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ চরমভাবে ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত।

 

আমরা অনতিবিলম্বে আব্বাস আলীকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিস্কার এবং রাজশাহীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেপ্তারের জোর দাবি জানাচ্ছি।’

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর