রাজশাহী কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী দল থেকে বহিস্কার

কাজী এনায়েত:
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ৫১৬ বার পঠিত

 

কাজী এনায়েত, রাজশাহী:

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নির্মাণ নিয়ে কটুক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্য দেয়ায় কাটাখালী পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক আব্বাস আলীকে দলীয় পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরী বৈঠকে আব্বাসকে পৌর আওয়ামী লীগের আবহায়কের পদ থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত হয়।

পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলীর সভাপতিত্বে জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আব্বাস আলীকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। একই সঙ্গে কেন দলীয় সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার করা হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শণের নোটিশ দেয়ারও সিদ্ধান্ত হয়।

মাজদার রহমান আরও বলেন, বৈঠক শেষে কাটাখালি আহব্বায়কের পদ থেকে বহিস্কার করে তিনদিনের মধ্যে জবাব দেয়ার নির্দেশ দিয়ে আব্বাসের নামে কারণ দর্শণের নোটিশ ইস্যু করা হয়েছে। জবাব পাওয়ার পর তাকে স্থায়ী বহিস্কারের জন্য দলের কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ পাঠানো হবে।

বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণ নিয়ে কটুক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠছে রাজশাহী। অধর্তব্য বক্তব্যদানকারী কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীকে আওয়ামী লীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার ও গ্রেপ্তারের দাবিতে বুধবার বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে দলটির নেতাকর্মী ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

মেয়র আব্বাসকে দল থেকে বহিস্কার ও দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করে কাটাখালি পৌরসভা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। বেলা ১১টার দিকে কাটাখালি বাজারে জড়ো হয়ে সেখান থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পৌর এলাকা প্রদক্ষিণ করে। মিছিল শেষে সেখানে সমাবেশ করে হয়।

এদিকে, সকাল ১০টায় নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আয়োজনে মানববন্ধন করা হয়েছে। মানববন্ধনে। মেয়র আব্বাস আলীকে দল থেকে দ্রুত বহিস্কারসহ তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

মেয়র আব্বাস একটি ঘোরায় বৈঠকে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কের পৌরসভার অংশের উন্নয়নকাজ নিয়ে কথা বলার সময় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্য দেন। এ সময় বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণা দেন তিনি। এ নিয়ে তার ফাঁস হওয়া একটি অডিও রোববার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পাড়ে।

অপরদিকে, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটুক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্যের অভিযোগে মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে থানায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে রাজশাহীর নগরের রাজপাড়া, বোয়ালিয়া ও চন্দ্রিমা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এ তিনটি এজাহার দায়ের হয়েছে। পুলিশ এজাহারগুলো গ্রহন করে মামলা হিসেবে রেকর্ড করে।

কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী নৌকা প্রতীক নিয়ে দুইবার মেয়র নির্বাচিত হন। তিনি পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহবায়ক এবং জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর