পশ্চিম বাংলার বগটুই গনহত্যার ঘটনার জেরে রক্তাক্ত হল বাংলার বিধান সভা

মনোয়ার ইমামঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৮ মার্চ, ২০২২
  • ১০৮ বার পঠিত

পশ্চিম বাংলার বগটুই গনহত্যার ঘটনার জেরে রক্তাক্ত হল বাংলার বিধান সভা

কলকাতা থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।

আজ পশ্চিম বাংলার বিধান সভায় বীরভূম জেলার রামপুরহাট গনহত্যার ঘটনা নিয়ে রীতিমত চলল বচসা পরে তা নিয়ে হাতাহাতি। রক্ত ঝরল পশ্চিম বাংলার বিধান সভা ভবনে এই ঘটনার পর পশ্চিম বাংলার বিধান সভার অধ্যাপক শ্রী বিমান বন্দোপাধ্যায় পশ্চিম বাংলার বিধান সভার বিরোধী দলের নেতা শ্রী শুভেন্দু অধিকারী সহ মোট পাঁচজন কে চলতি বিধান সভা থেকে সাসপেন্ড করেন। বাকি বিধায়করা হলেন বি জে পি দলের শ্রী নরহরি মাহাত ও মনোজ টিগ্গা ও দীপক বরম্মন এবং শ্রী শঙ্কর ঘোষ। সেই সাথে এই মারপিট এর ঘটনায় নাকে আঘাত পেয়ে কলকাতার এস কে এম হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে তৃনমূল দলের বিধায়ক শ্রী অসিত মজুমদার। তিনি পশ্চিম বাংলার হুগলি জেলার চুচুড়ার বিধায়ক। আজ পশ্চিম বাংলার বিধান সভার অধিবেশনের শেষ দিনে পশ্চিম বাংলার বি জে পি দলের বিধায়করা পশ্চিম বাংলার শাসক দল কে চেপে ধরে বীরভূম জেলার রামপুরহাট বগটুই গনহত্যার ঘটনা নিয়ে। এবং তারা দাবি করতে থাকে এই ঘটনার সাথে জড়িত ছিলেন শাসক তৃনমূল দলের জেলা নেতৃত্ব এবং বীরভূম জেলার পুলিশ প্রশাসন। এই ঘটনা নিয়ে পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য জানতে চান। এই নিয়ে শাসক তৃনমূল দলের বিধায়কদের সাথে বি জে পি র বিধায়কদের বচসা শুরু হয় পরে হাতাহাতি এবং মারপিট শুরু হয়। এবং এই ঘটনার জেরে বিধানসভায় সাধা পোশাকের পুলিশ ডেকে বি জে পি দলের বিধায়কদের বের করে দেওয়া হয়। এই ঘটনার পর বি জে পি দলের বিধায়করা বিধান সভার ওয়ালে নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেন এবং পরে পশ্চিম বাংলার বিধান সভা কক্ষ্য ত্যাগ করেন। এই ঘটনার পর পরস্পর বিরোধী বক্তব্য রাখেন পশ্চিম বাংলার মন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র ফিরাদ ববি হাকিম ও পশ্চিম বাংলার বিধান সভার বিরোধী দলের নেতা শ্রী শুভেন্দু অধিকারী।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর