1. admin@onakanthirkantho.com : admin :
  2. editor1@raytahost.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  3. banhlarodikar69@gmail.com : Manun Mahi : Manun Mahi
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রংপুরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে সুস্বাদু হাঁড়িভাঙা আম রাণীশংকৈলে ২১০০ কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ধানবীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রম শুরু বিষাক্ত রাসেল ভাইপার সাপের আতঙ্ক এলাকা বাসী  বাউফলে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের বরণ অনুষ্ঠান। কচুয়ায় এক পরিবারের কাছে জিম্মি ২০ পরিবারের শতাধিক মানুষ হয়রানি থেকে মুক্তি পেতে মানববন্ধন দুবাই জয় শ্রীকৃষ্ণ লোকনাথ সেবা সংঘের ৯ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মাহবুব আলমকে সংবর্ধনা প্রদান মতলব উত্তরে গলায় ফাঁস দিয়ে কিশোরের আত্মহত্যা রংপুরের প্রধান নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র ও বিজয়ীর ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে

রাজশাহীর পবায় অবৈধ পুকুরখননের দায়ে এক ব্যক্তির জেল

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২২
  • ১১৭ বার পঠিত

রাজশাহীর পবায় অবৈধ পুকুরখননের দায়ে এক ব্যক্তির জেল

কাজী এনায়েত, রাজশাহী অফিসঃ

রাজশাহী জেলার পবায় ফসলি জমিতে পুকুর খননের অভিযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। উপজেলার দারুশা এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। অবৈধ পুকুরখননের দায়ে এবং এলাকার মানুষকে হুমকী দেয়ার অপরাধে একজনকে ছয় মাসের জেল দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দারুশা এলাকার মৃত হারুনর রশিদ ওরফে হারানের ছেলে পুকুরখনন সিন্ডিকেটের প্রধান মিনারুল ইসলামকে ছয় মাসের জেল দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আদালতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা।

জানা গেছে, বিগত কয়েক বছর থেকে কর্ণহার ও এর আশেপাশের বিল এলাকায় পরিবেশ ও রাস্তাঘাট নষ্ট করে বেপরোয়াভাবে অবৈধ পুকুরখনন চালিয়ে যাচ্ছেন মিনারুল ইসলাম। গতবছরও ভ্রাম্যমান আদালতে তার দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এ ব্যাপারে ভূক্তভোগি লুৎফর রহমানের ছেলে সুমন জানান, যথাযথ আইনি পদক্ষেপের অভাবে প্রতিবছর দারুশা এলাকার বড়বিলসহ আশেপাশের বিলে অসংখ্য অবৈধ পুকুর খনন হচ্ছে। ফলে কৃষি জমি, বড়বিলের জীব বৈচিত্র ও রাস্তাঘাট নষ্ট হচ্ছে।

এর মধ্যে মিনারুল ও তার ঘনিষ্টরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত থেকে সর্বাধিক পুকুর খনন করে থাকে এবং ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ মানুষকে জিম্মি করে জমি নিয়ে পুকুর খননের অনেক অভিযোগ রয়েছে।

তারা টাকার বিনিময়ে প্রশাসনের কিছু অসাধু কর্মচারী ও নেতাকে ম্যানেজ করে দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে পুকুর খনন করছে। বেপরোয়া অবৈধ কর্মকান্ড বন্ধে কার্যকর আইনি পদক্ষেপ গ্রহণে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন তিনি।

সুমন ও আব্দুল আজিজ বলেন, বর্তমানে দারুশা পশ্চিমপাড়া মিনারুল তাদের জমির পাশে পুকুর কাটলেও পাড় দেননি। এতে বর্ষায় আব্দুল আজিজের জমি পুকুরে ধ্বসে পড়বে। জনগণের কল্যাণে পুকুরখননে বারবার নিষেধ করা সত্বেও মিনারুল শুনে না। উল্টো আমাদেরই হুমকী-ধামকি দিয়ে আসছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর

Archive Calendar

All rights reserved © 2019
Design by Raytahost