সাভারে মেয়ের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল পিতার

মোঃ শান্ত খান ঢাকা জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৩১ বার পঠিত

মোঃ শান্ত খান ঢাকা জেলা প্রতিনিধি

সাভারে মেয়েকে নিয়ে মোটরসাইকেলে বেড়াতে গিয়ে বেপরোয়া আরেকটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন বাবা। আহত বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মেয়ে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

আজ বিরুলিয়া-মিরপুর সড়কের দত্তপাড়া এলাকায় আমিন মোহাম্মদ মডেল টাউনের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

নিহত ৫০ বছর বয়সী ব্যবসায়ী আফজাল হোসেন পিরোজপুরের কাউখালীর বাসিন্দা। কয়েক দিন আগে মেয়ের সঙ্গে দেখা করার জন্য ঢাকায় আসেন তিনি।

আহত সানজিদা মেহজাবিন অর্পি বলেন, ‘আমি আশুলিয়ার খাগান এলাকার ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটিতে ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টে পড়ি। বাবা পিরোজপুরে গ্রামের বাড়িতে থাকেন। কয়েক দিন আগে আমার সঙ্গে দেখা করতে মোটরসাইকেল নিয়ে ঢাকায় আত্মীয়ের বাসায় আসেন। আজ সকালে আসেন আমার হোস্টেলে। পরে বিকেলে আমাকে নিয়ে বিরুলিয়া ব্রিজে মোটরসাইকেলযোগে রওনা হন। বাবা বাম পাশ দিয়ে আস্তে আস্তে মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা বেপরোয়া গতির আরেকটি মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আমাদের বাইকের সঙ্গে সংঘর্ষ ঘটায়। এসময় আমি সড়কের পাশে ছিটকে পড়ে সামান্য আহত হই। কিন্তু বাবা গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানেই তিনি মারা যান।’

অর্পির খালাতো বোন সেলিনা সুলতানা সুমি বলেন, ‘অপর মোটরসাইকেল চালকের বেপরোয়া গতির কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়রা মোটরসাইকেলটি আটক করলেও চালককে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছেন প্রভাবশালীরা। আমরা এই হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।’

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাঈনুল ইসলাম বলেন, ‘হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর