বগুড়ায় বিএনপির দুই শতাধিক নেতাকর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদান!!

মিরু হাসান বাপ্পী বগুড়া জেলা সংবাদদাতা
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ১৫ বার পঠিত

 মিরু হাসান বগুড়া জেলা প্রতিনিধি 

বগুড়া শেরপুর উপজেলার খানপুর ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড বিএনপির ২০০ শতাধিক নেতাকর্মী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।

শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ভান্ডার কাফুড়া (ভদ্রপাড়া) গ্রামে মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের পরিচিতি সভা ও যোগদান অনুষ্ঠানে, ‘বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শেরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান’ মোঃ মজিবুর রহমান মজনুর হাতে ফুল দিয়ে, বিএনপির নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগে যোগদান করেন।
শনিবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ এ কথা জানান।

তিনি বলেন, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডে নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভার আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনুর হাতে ফুলেল তোড়া দিয়ে স্থানীয় ভান্ডার কাফুড়া এলাকার বিএনপি নেতা মতিউর রহমান মতি, শাহজাহান আলী, আল আমিন, ইউসুফ আলী ও কাসেম আলীর নেতৃত্বে দুই শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। পরে তাদেরকেও ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বরণ করেন অত্র ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতারা।
এসময় অন্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম ফারুক, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুন্সী সাইফুল বারী ডাবলু, সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শাহজামাল সিরাজী, খানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, সাধারণ সম্পাদক পরিমল দত্ত, আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী, নুরুল ইসলাম নুরুসহ স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

আওয়ামী লীগে যোগদানকারী বিএনপি নেতা মতিউর রহমান মতি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি। এছাড়া বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম দেখে আমরা অভিভূত। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তাদের মতো সবাইকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকার আহবান জানান তিনি।

এদিকে উপজেলা বিএনপির সভাপতি শহিদুল ইসলাম বাবলু জানান, ওইসব ব্যক্তি কোনো দিনই বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন না। তারা মূলত আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতেন বলে শুনেছি। এছাড়া খানপুর ইউনিয়নে আমাদের ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি রয়েছে। সেখানে তাদের কোনো নাম নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর